প্রাথমিক পর্যায়ে ধরা পড়লে ক্যান্সার প্রতিরোধ করা সম্ভব

ক্যান্সার প্রতিরোধ, শনাক্তকরণ এবং চিকিৎসা বিষয়ক সচেতনতা বৃদ্ধিতে সবার একত্রিত হতে হবে।

ক্যান্সার বিষয়ক সাধারণ প্রশ্ন ও উত্তর

> ক্যান্সার রোগ কি ছোঁয়াচে?
ক্যান্সার ছোঁয়াচে রোগ নয়। একজন মানুষের শরীর থেকে অন্য মানুষের শরীরে ক্যান্সার ছড়ায় না। এই ব্যাপারে আরো সচেতনতা তৈরী করতে হবে।

> ক্যান্সার কিভাবে ছড়িয়ে যায়?
ক্যান্সার বড় হবার সাথে সাথে এটি আশেপাশের কাঠামোকে আক্রমণ করে এবং ক্ষতির কারণ হয়। এটি লিম্ফ নোড, রক্ত প্রবাহের মাধ্যমে শরীরের বিভিন্ন অংশে ছড়িয়ে পড়তে পারে, যেমনঃ ফুসফুস, লিভার, হাড়, মস্তিষ্ক ইত্যাদি।

> কোর-বায়োপসি কি? কিভাবে করে?
শরীরের যে স্থানে ক্যান্সারের আশঙ্কা রয়েছে বলে মনে করা হয়, সে স্থান থেকে কোষ বা ছোট মাংশ পিন্ড সংগ্রহ করে বিভিন্ন মাইক্রোস্কোপিক পরীক্ষা করা হয়। এ পরীক্ষাকে বলা হয় বায়োপসি টেস্ট (Biopsy Test)। ক্যান্সার চিকিৎসায় বায়োপসি বহুল প্রচলিত একটি টেস্ট।

> শরীরের কোন কোন অংশে ক্যান্সার হতে পারে?
শরীরের যেকোনো অংশে ক্যান্সার হতে পারে। সাধারণত প্রথমে মাংশপিন্ড বা টিউমার হতে পারে। কিন্তু ধীরে ধীরে আকারে বৃদ্ধি পায় এবং পার্শ্ববর্তী টিস্যুর ক্ষতি করে।

> টিউমার কেন হয়? সব টিউমার থেকেই কি ক্যান্সার হতে পারে?
অনিয়ন্ত্রনীয় কোষবৃদ্ধি টিউমার সৃষ্টি করে । জেনেটিক ত্রূটি, অনিয়ন্ত্রিত জীবন-যাপন, বিভিন্ন ভাইরাস বা ব্যাক্টেরিয়ার ইনফেকশন, এর সবথেকে সম্ভাব্য কারন । শরীরের ওপর কোন রাসায়নিক প্রভাবের বা তেজষ্ক্রিয় বিকিরনের ফলে জেনেটিক মিউটেশনের জন্যও টিউমার হতে পারে । আবার প্রতিরোধ ক্ষমতা কমে গেলে অন্যান্য রোগের মত শরীরের যে কোন অংশ আক্রান্ত হতে পারে । সব টিউমারই ম্যালিগনেন্ট বা ক্যানসারগ্রস্ত হয় না । অনেক টিউমার ক্ষতি না করে শরীরে তৈরী হয় ও রয়ে যায় ৷ তবে এটা বলা যায়না কোনো একটি টিউমার ভবিষ্যতে কোন ধরনের টিউমারে রূপান্তরিত হবে। একটি নন-ক্যান্সার টিউমারও ভবিষ্যতে গিয়ে ক্যান্সার টিউমারে পরিণত হতে পারে। তাই শরীরের যেকোনো অস্বাভাবিক বৃদ্ধিকে খুবই সাবধানতার সাথে নজরে রাখা উচিত।

> পশু-পাখিরও কি ক্যান্সার হতে পারে? ক্যান্সার আক্রান্ত পশু খেলে ক্যান্সার হবে কি?
মানুষের মত অন্যান্য পশু-পাখিরও ক্যান্সার হতে পারে। গরু, ছাগল মুরগিদেরও ক্যান্সার হতে পারে। তবে ক্যান্সার আক্রান্ত গরু-ছাগল-মুরগি খেলে সাধারণত কোনো ক্ষতি নেই, কারণঃ
১) ক্যান্সার ছোঁয়াচে রোগ নয়।
২) সঠিকভাবে রান্না করলে ক্যান্সার জীবাণু মরে যায়
৩) আমাদের পাকস্থলিতে থাকা হাইড্রোক্লোরিক এসিড ক্যান্সার জীবাণু ধ্বংস করে দিবে।
তাই ক্যান্সার আক্রান্ত পশু-পাখি খাওয়া যাবে বলে ধারণা করা হয়। তবে জেনে বুঝে আক্রান্ত পশু না খাওয়াই ভালো।

> ক্যান্সার কি নিরাময়যোগ্য?
হ্যাঁ, প্রাথমিক অবস্থায় ধরা পড়লে এবং দ্রুত চিকিৎসা করালে ক্যান্সার নিরাময় করা যায়।

> বয়স্ক মানুষেরা ক্যান্সারে বেশি আক্রান্ত হয় কেন?
যেকোন বয়সে ক্যান্সার হতে পারে। কিন্তু মানুষের বয়স বাড়ার সাথে সাথে ডিএনএ-তে পরিবর্তন হতে পারে, এবং রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা কমতে থাকে, তাই ক্যান্সার হবার সম্ভাবনাও বেড়ে যায়।

> সিগারেট খেলে কি আসলেই ক্যান্সার হয়?
হ্যাঁ, সিগারেট ফুসফুসের বেশিরভাগ ক্যান্সারের কারণ। এগুলি মূত্রাশয়, অগ্ন্যাশয়, মুখ, স্বরযন্ত্র, খাদ্যনালী এবং কিডনির ক্যান্সারের একটি প্রধান কারণ।

> কেমোথেরাপি চলাকালীন সালাদ খাওয়া যাবে?
কেমোথেরাপি চলাকালীন সালাদ খাওয়া যাবে না। ভালো ভাবে রান্না করা খাবার খেতে হবে।